1. abir.sayeed@gmail.com : abir :
  2. xerosmac@gmail.com : Mohin Soy : Mohin Soy
  3. zakariashipon1993@gmail.com : Narayanganj Tribune : Narayanganj Tribune
  4. sifat.sikder13@gmail.com : Sifat Sikder : Sifat Sikder
June 18, 2021, 1:06 am

বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী ও সাংসদ শামীম ওসমানের সমপর্যায়ের নেতা মেম্বার আলাউদ্দিন?

Reporter Name
  • Update Time : Tuesday, January 19, 2021

নিজস্ব প্রতিবেদক : একজন ইউপি সদস্য তিনি। বলা হয়ে থাকে, কুতুবপুরের ৯ টি ওয়ার্ডের ১২জন ইউপি সদস্যের মধ্যে সবচেয়ে বিতর্কিত তিনি। একের পর এক অঘটন ঘটিয়ে বারবার নিজেকে চিনিয়েছেন নানা ভঙ্গিমায়। সচেতন পাঠকমাত্রই অনুধাবন করতে পারছেন, উল্লেখিত ব্যক্তির নাম আলাউদ্দিন হাওলাদার।

কুতুবপুরের ৫ নং ওয়ার্ডের এই ইউপি সদস্য নিজেকে আওয়ামী লীগ নেতা বলে দাবি করে থাকেন। দলের একটি ওয়ার্ড কমিটির সভাপতিও তিনি, প্রটোকল অনুযায়ী যা দলের সাংগঠনিক কাঠামোর সর্বশেষ ধাপের আগের ধাপ। কেন্দ্রীয়, মহানগর, জেলা, থানা ও ইউনিয়নের পরের ধাপই ওয়ার্ড কমিটি। অর্থাৎ এরপরের যে ইউনিট কমিটির বিধান রয়েছে, সেটিই দলের সর্বশেষ ধাপ। অথচ এই ওয়ার্ড নেতাই নিজেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও তিনবারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমানের সমপর্যায়ের হিসেবে জাহির করছেন।

বিশ্বস্ত সূত্রমতে, মেম্বার আলাউদ্দিন বাড়ির নিচেই গড়ে তুলেছেন কার্যালয়। আর সেই কার্যালয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা ও সাংসদ শামীম ওসমানের সমান্তরালে টানিয়েছেন নিজের ছবি। অথচ সংবিধানে ৪ক অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার ও প্রধান বিচারপতির কার্যালয় এবং সব সরকারি আধা-সরকারি অফিস, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান, সংবিধিবদ্ধ সরকারি কর্তৃপক্ষের প্রধান ও শাখা কার্যালয়, সরকারি-বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, বিদেশে অবস্থিত বাংলাদেশের দূতাবাস ও মিশনগুলোতে সংরক্ষণ ও প্রদর্শন করতে হবে।’ বিধি অনুসারে সরকারি-বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠানেই বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি প্রদর্শিত হয়। তাদের ছবির সমান্তরালে অন্যকারো ছবি ব্যবহার আইনের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

আর সেটিই করে চলেছেন আলাউদ্দিন হাওলাদার। তাই সচেতন মহলে প্রশ্ন জেগেছে, ওয়ার্ড নেতা আলাউদ্দিন কি তবে নিজেকে জাতির জনক, দলের সভানেত্রী কিংবা সাংসদের সমকক্ষ ভাবতে শুরু করেছেন? এমন ন্যাক্কারজনক কাজের পরেও তিনি কিভাবে দলের পদে থাকেন কিংবা তাকে কেন শোকজ করা হচ্ছে না, সেই জিজ্ঞাসাও জনসাধারণের মধ্যে।

অভিযোগ আছে, অন্য দলের নেতাদের সাথে প্রকাশ্যে আঁতাতের মাধ্যমে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হন আলাউদ্দিন হাওলাদার। এমনকি নৌকার বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে ভোট চাইতে দেখা গেছে তাকে। আঁতাতের নির্বাচনে মেম্বার হয়ে কখনো প্রতিবন্ধী কিশোরকে পিটিয়ে, কখনো কবরস্থানের নিচে মার্কেট নির্মাণ করতে গিয়ে, কখনোবা নিজ কার্যালয়ে যুবকদের বর্বর নির্যাতনের মাধ্যমে আলোচনায় এসেছেন তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 TV Site
Develper By ITSadik.Xyz